Infinix hot 9 play pros cons & review

 চাইনিজ Smartphone brand Infinix দেশের বাজারে নতুন। অনেকে হয়ত এই ব্যান্ডের নাম প্রথম বার শুনলেন। অনেকেই আবার প্রথম থেকেই ব্রান্ডটির নাম জানে। তবে যাই হোক, নতুন হলেও ব্রান্ড হিসেবে কোম্পানিটি কিন্তু একেবারেই ফেলনা না। ব্রান্ডটি তাদের যোগ্যতা প্রমাণের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে। সম সাময়িক ট্রেন্ডকে গুরুত্ব দিয়ে নতুন নতুন ফোন নিয়ে আসছে ব্রান্ডটি। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি ব্রান্ডটি “Infinix hot 9 play” মডেলের একটি স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ল। ফোনটি ৮ আগস্ট থেকে অনলাইন সপ দাড়াজে পাওয়া যাচ্ছে। আমাদের সম্মানিত সদস্যদের উদ্দেশ্যে infinix hot 9 play pros cons & review তুলে ধরা হলো।

infinix hot 9 play pros cons & review

Infinix hot 9 play ফোনটি মূলত এন্ট্রি লেভেলের গ্রাহকদের terget করে তৈরি করা হয়েছে। সাধারণ মানুষ যাতে সাধ্যের মধ্যে ভাল ফোন কিনতে পারে সে লক্ষ্য নিয়েই ফোনটি তৈরি। Ram & internal memory ভেদে ফোনটি দুটি সংষ্করণে পাওয়া যাচ্ছে। একটির দাম ৭,৯৯০ টাকা এবং অপরটির দাম ৯,৯৯০ টাকা। তবে দাম যাই হোক না কেন। এন্ট্রি লেভেলের মোবাইল ফোন হলেও অনেক বেশি সুবিধা পাওয়া যাবে ফোনটি থেকে।

Camera:-

আধুনিক সব ফোনের মতো এই ফোনটিতেও main camera & selfie camera রয়েছে। পাশাপাশি বেশ কিছু ফিচার ও রয়েছে। Camera এবং এর ফিচার গুলো ধারাবাহিক ভাবে বর্ণনা করা হলো।

Main Camera:-

হট ৯ প্লে ফোনটিতে ১৩ মেগা পিক্সেল + ২ মেগা পিক্সেল সহ মোট দুইটি ক্যামেরা রয়েছে। পাশাপাশি Auto focus ফিচার ও রয়েছে। তাই ছবি হয়ে ওঠে চোখে পড়ার মতো।

Selfie Camera:-

সেলফি তোলার জন্য ফোনটিতে ৮ মেগা পিক্সেলের একটি ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরার পাশাপাশি LED ফ্লাসেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাই সেলফি হয়ে ওঠে অসাধারণ।

Camera feture:-

ইনফোনিক্সের অনান্য ফোনের তুলনায় ফোনটিতে বেশ কিছু বৈচিত্র আনা হয়েছে। ফোনটিতে Auto focus feture রয়েছে। যা অনেক সময় অনেক ভাল ভাল ফোনে ও পাওয়া যায় না। ছবি তোলার সময় Triple LED light জ্বলে।যা ছবিকে আরো দুর্দান্ত করে তুলতে সাহায্য করে।

ডিসপ্লে:-

স্মার্টফোন আপনি যেটাই করেন না কেন, তার output দেখতে পাবেন ডিসপ্লেতে। ডিসপ্লে যদি ভাল ও মনের মতো না হয়, কিংবা ডিসপ্লে যদি ছোট হয় তাহলে স্মার্টফোনের আসল মজা টাই নষ্ট হয়ে যায়।

ক্রেতাদের ভাল লাগা, মন্দ লাগা ইত্যাদি সব কিছু বিবেচনায় রেখে ফোনটিতে 6.82 inch Semantic display লাগানো হয়েছে। বিশাল এই ডিসপ্লেতে আপনি সব ধরনের কাজ বেশ সাচ্ছন্দেই সেরে ফেলতে পারবেন।

ব্যাটারি:-

একটা কথা সব স্মার্টফোন ব্যবহারকারী জানে যে, “স্মার্টফোনের চার্জ দ্রুতই শেষ হয়ে যায়।” তাই আজকাল সবাই বেশ long battery ওয়ালা স্মার্টফোন খুঁজে থাকে। আপনিও যদি long battery ওয়ালা স্মার্টফোন খুঁজে থাকেন তাহলে আপনাকে আর কষ্ট করে ফোন খুঁজে খুঁজে সময় নষ্ট করতে হবে না। নিঃসন্দেহে কিনে ফেলুন Infinix hot 9 play ফোনটি। এর শক্তিশালী 6000 mAh battery আপনাকে দীর্ঘ সময় Power backup প্রাপ্তির নিশ্চয়তা দেবে।

র‌্যাম:-

স্মার্টফোনের Ram স্মার্টফোনের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বস্তু। স্মার্টফোনের Ram যত বেশি হবে,ফোনে তত বেশি পরিমাণ করা যাবে। Ram কম হলে ফোনে ভাল কোন চালাতে পারবেন না।

গ্রাহকদের চাহিদা ও বাজেটের ভিন্নতার কারণে ফোনটি ২ জিবি ও ৪ জিবি র‌্যাম দুটি আলাদা আলাদা সংষ্করনে পাওয়া যাচ্ছে। ২ জিবি সংষ্করণের ফোনটিতে ২ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ পাবেন। আর 4 gb সংষ্করণের ফোনটিতে 4 gb র‌্যাম ও 64 gb ইন্টারনাল স্টোরেজ পাবেন।

Body:-

ইনফোনিক্স হট ৯ প্লে ফোনটির Body Dimension 171.8 mm X 78 mm X 8.9 mm (6.76 X 3.07 X 0.35 in) ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির সামনের অংশ (Display) গরিলা গ্লাস, Frame এবং Backpad প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এর মোট ওজন ২০৯ গ্রাম। এতে ন্যানো সাইজের দুটি সিম এক সাথে ব্যবহার করা যায়।

Operating System:-

বর্তমান সময়ে এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য Android 10.0 (Honeycomb) আবিষ্কৃত সর্বশেষ Verson. এর পর এন্ড্রয়েড ফোনের আর কোন Verson বের হয়নি। infinix hot 9 play ফোনটিতে এন্ড্রয়েডের সর্বশেষ verson Android 10.0 (Honeycomb) ব্যবহার করা হয়েছে। এত করে, hot 9 play ব্যবহারকারীরা সব সময় update থাকতে পারবে।

System Hardware:-

স্মাটফোনটির System Hardware infinix ব্রান্ডের অনান্য ফোনের হার্ডওয়্যারের মতোই বেশ Powerfull. ফোনটির System Hardware সম্পর্কে সংক্ষেপে আলোচনা করা হলো।

প্রসেসর:-

স্মার্টফোনটেতে প্রসেসর হিসেবে Mediatek Helio A25 প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যার CPU Power:- “Quad Core 2.0GHz Cortex-A53” এবং “Octa-core (4 X 1.8 GHz Cortex-A53 & 4 X 1.5 GHz Cortex-A53)”.

GPU:-

উন্নত মানের Grapchics প্রদর্শনের জন্য ফোনটিতে IMG PowerVR GE8320 ব্যবহার করা হয়েছে।

CONNECTIVITY:-

হট ৯ প্লে ফোনটি 2G, 3G এবং 4G সমর্থন করে। পাশাপাশি এতে Built-in GPS রয়েছে। ফোনের GPS syatem অত্যন্ত কার্যকর। যে কোন স্থানে এটি সহজেই সঠিক Location সনাক্ত করতে পারে। এমনকি আবহাওয়ার ও সঠিক তথ্য দিতে পারে। ফোনটিতে Built-in FM Radio রয়েছে। তাই, আপনি আপনার পছন্দের রেডিও প্রোগ্রাম বেশ সাচ্ছন্দেই শুনতে পারবেন।

ফিচার:-

সব স্মার্টফোনের মতো Infinix hot 9 play ফোনটিতে ও বেশ কিছু ফিচার বিদ্যমান রয়েছে। Infinix hot 9 play ফোনের এই ফিচার গুলো ধারাবাহিক ভাবে বর্ণনা করা হলো।

সেন্সর:-

সবরকম sensor মিলিয়ে ফোনটিতে মোট ৭ প্রকার sensor রয়েছে। সেন্সর গুলো হলো:-

(1)Fingerprint sensor, (2)Proximity sensor, (3)Light sensor, (4)Accelerometer sensor, (5)Compass sensor, (6)Gyroscope sensor, (7)Gravity sensor.

Speical Feture:-

Speical feture হিসেবে ফোনটিতে প্রযুক্তি পাবেন। ফোনটির চার্জিং সিস্টেম খুব ভালো। খুব কম সময়ে ফোনটি চার্জ করা যায়।

দাম:-

Infinix ব্রান্ডটি দেশের বাজারে এক বারেই নতুন এবং খুব বেশি সুনাম অর্জন করতে পারেনি। তাই, মার্কেট রিসার্চ অথবা গ্রাহক সন্তুষ্টি যাই বলেন না কেন। বাজারে বিদ্যমান অনান্য ব্যান্ডের তুলনায় Infinix ব্যান্ডের ফোনের দাম তুলনা মূলক অনেক কম হয়ে থাকে। ফিচারের তুলনায় অনেক কম দামে ফোন গুলো বিক্রি করা হয়ে থাকে।

ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে Infinix hot 9 play ফোনটির মূল্য অনেক কম রাখা হয়েছে। ২ জিবি সংষ্করণের ফোনটির মূল্য ৭,৯৯০ টাকা এবং ৪ জিবি সংষ্করণের ফোনটির মূল্য ৯,৯৯০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

Pros & Cons

Pros
  • Leargh Screen.
  • Auto Brightness.
  • দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি (6000 mAh).
  • Fast Charging Feture.
  • সেলফি ক্যামেরায় ফ্লাস রয়েছে।
  • ক্যামেরায় auto focus feture রয়েছে। যা সাধারণত অনেক দামী দামী ফোনে ও থাকে না।
  • ছবি তোলার সময় Triple LED Flash জ্বলে। যা ছবিকে আরো প্রাণবন্ত করে তোলে।
  • Fingerprint sensor যথেষ্ট পরিমাণ fast ও নিখুঁত কাজ করে।
Cons
  • Avgrage camera perfomence.
  • User interface ভালো না।
  • দুর্বল প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে।
  • কিছু কিছু App লোড হতে প্রচুর সময় নেয়।
  • Sound syatem ভালো না।

xiaomi redmi 9 prime review bangla Specifications & Price update 2020


একই ধরনের পোষ্ট-


Leave a Reply